কেন পড়বো এলএলবি ( LLB )  ??

কেন পড়বো এলএলবি ( LLB )  ??

LLB

LLB বা Bachelor of Legislative Law যা ল্যাটিন Legum Baccalaureus থেকে এসেছে। তবে এটি সাধারণত Bachelor of Laws হিসেবেই সকলের কাছে পরিচিত। এই LLB বিষয়টি হচ্ছে স্নাতক আইনের একটি ডিগ্রি। এই স্নাতক আইন ডিগ্রি বিচার বিভাগ এবং আইন বিভাগের ক্ষেত্রে প্রবেশ করতে চায় এমন যে কোনও ব্যক্তির জন্য পূর্বশর্ত। কোর্সটি সাধারণত ২ বছরের জন্যও হয়ে থাকে আবার ৪ বছরের জন্যও হয়ে থাকে, যা আইনি সমস্যা সমাধান, যোগাযোগ এবং বিচারের মতো দক্ষতা বিকাশে সহায়তা করে। 

 

আইন অনুষদ আইনি ক্ষেত্রে দেশের প্রয়োজন মেটাতে আইনি পেশাজীবী তৈরি করছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের অধীনে আইন পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের ব্যাচেলর অব ল (অনার্স), ব্যাচেলর অব ল (পাস) এবং মাস্টার অব ল প্রদান করে হয়ে থাকে। কেউ আইন বিষয় নিয়ে পড়তে গেলে LLB থেকে আগে স্নাতক সম্পন্ন করতে হয়। কেননা LLB কোর্সে আইনের অধিকাংশ বিষয় নিয়েই পড়ানো হয়। ভবিষ্যৎ বিশ্বের সেবা করার জন্য দক্ষ, অভিজ্ঞ, বিশিষ্ট এবং ন্যায়পরায়ণ আইন পেশাজীবী তৈরি করা এই কোর্সের অন্যতম উদ্দেশ্য।আইনি গবেষণা এবং ওকালতি দক্ষতা বিকাশ, সমাজে আইনি জ্ঞান তৈরি, স্থানান্তর, প্রয়োগ এবং মানিয়ে নেওয়া সহ আরও নানান বিষয় সম্পর্কে এই এলএলবি কোর্সে ধারণা দেওয়া হয়। 

 

আইন বিভাগের লক্ষ্য হল মানসম্মত শিক্ষা, প্রশিক্ষণ এবং অত্যাধুনিক গবেষণার মাধ্যমে আইনের ক্ষেত্রে তাত্ত্বিক এবং বাস্তব জ্ঞান সহ শক্তিশালী পেশাগত দক্ষতার সাথে দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করা। তাই আইন অনুষদে এলএলবি কোর্সটি খুবই গুরুত্ব বহন করে। বার কাউন্সিলের রেজিস্ট্রেশন সহ যে কোন ধরনের সনদ প্রাপ্তির জন্য প্রয়োজনীয় জ্ঞান প্রদান, বিভিন্ন ধরণের আইনি ব্যবস্থাকে বিশেষ করে সাধারণ আইনের ঐতিহ্যের পাশাপাশি ইউরোপে প্রচলিত নাগরিক আইন ব্যবস্থাকে সামনে রেখে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক উভয় চরিত্রের শিক্ষা পদ্ধতি এবং আইনি গবেষণার সাথে ঘনিষ্ঠভাবে পরিচয় করিয়ে দেওয়া সহ বিভিন্ন দিক নিয়ে এই কোর্স সাজানো হয়ে থাকে। 

 

আইনের শাসন, অর্থনৈতিক সংস্কার, মানবাধিকার, নারীর অধিকার এবং শিশু, বয়স্ক, অসুস্থ এবং সুবিধাবঞ্চিত জনগোষ্ঠীর অধিকার সুরক্ষার ক্ষেত্রে প্রগতিশীল পরিবর্তনগুলিকে শক্তিশালী করার জন্য আনুষ্ঠানিক আইনি কাঠামো এবং এর বাইরেও আরও বিস্তর বিষয় নিয়ে এলএলবি এর কারিকুলাম সাজানো হয়। এলএলবি কোর্সে শুধুমাত্র যে আইনি ধারণা বা এই জাতীয় আলোচনা হয়ে থাকে তা কিন্তু নয় সমাজবিজ্ঞান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, অর্থনীতি, মনোবিজ্ঞান, দর্শন ইত্যাদিসহ অন্যান্য অধ্যয়নের ক্ষেত্রগুলির মধ্যে তুলনামূলক পাঠের ব্যবস্থাও করা হয়। আইনি তত্ত্ব এবং মূল্যবোধের উপর অধ্যয়ন এবং গবেষণা বৃদ্ধি করা; তত্ত্ব এবং অনুশীলনের মধ্যে সম্পর্ক পরীক্ষা করা এই কোর্সের অন্যতম উদ্দেশ্য। শিক্ষার্থীদের সমাজ, জাতি এবং সব ধরণের মানবিক ক্ষেত্রে অবদান রাখতে উৎসাহিত করা, প্রণীত আইনের অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং রাজনৈতিক প্রভাব বিশ্লেষণ ও পরীক্ষা করার জন্য শিক্ষার্থীদের সেই উপযোগী করে গড়ে তুলতেও এলএলবি কোর্সটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। 

 

বাংলাদেশে পাবলিক কিংবা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে অল্প কিছু বিশ্ববিদ্যালয়ে এলএলবি কোর্স চালু রয়েছে। ঢাকা, রাজশাহী, জাহাঙ্গীরনগর এই অল্প কিছু পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন অনুষদ চালু রয়েছে যেখান থেকে আপনি চাইলে ২ বছরেও এলএলবি কোর্স শেষ করতে পারেন আবার ৪ বছরেও এলএলবিতে স্নাতক সম্পন্ন করা যায়। এরপর এলএলএম কোর্স করতে হতে পারে তবে সেটা নির্ভর করছে পরবর্তীতে আপনি কোন পেশার সাথে যুক্ত হচ্ছেন।

 

এলএলবিতে চাহিদা প্রচুর থাকলেও এতে আগ্রহী শিক্ষার্থী বা যোগ্য শিক্ষার্থীর অনেক অভাব রয়েছে বলা চলে। এলএলবি পড়ে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে খুব সহজেই গড়া যায়। তবে যে বিষয়গুলো অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে তা হচ্ছে দক্ষতা, বুদ্ধি এবং ভালো যুক্তি দিতে পারা। এলএলবি পড়ে আইনভিত্তিক যেকোনো পেশায় ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন। ব্যারিস্টার, জাজ, সাধারন আইনজীবী, লিগাল এডভাইজার (কোম্পানি, ব্যাংক,

মার্কেটসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান) কিংবা জাজ এডভোকেট জেনারেল (মার্শান আইন) বা বিশ্ববিদ্যালয় ও ল’ কলেজ এ শিক্ষক হিসেবেও ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন। বিসিএস ও অন্য যেকোনো নন ক্যাডারের চাকরি, ব্যাংক, স্বায়ত্তশাসিত ও বহুজাতিক প্রতিষ্ঠানে চাকরির ক্ষেত্রে বেশ ভালো সুযোগের পাশাপাশি ভালো মানের বেতনের সুবিধাও রয়েছে। আইনি পেশায় যুক্ত হলে আয়-রোজগারের বিষয়টি অভিজ্ঞতা, ব্যক্তিগত দক্ষতা ও আরও নানা দিকের উপর নির্ভর করে। হাইকোর্ট অথবা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীদের মাসিক আয় মামলার ধরন

অনুযায়ী ৬০ হাজার থেকে ৭ লাখ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। তবে আইনি পেশা নিয়ে কিছু নেতিবাচক দিকও রয়েছে। এই পেশায় সৎ থাকাটা অনেক চ্যালেঞ্জের ব্যাপার। আপনি যদি আয়ের দিক বিবেচনা করে এই বিষয়ে পড়তে আসেন তাহলে না আসাই ভালো। যোগ্যতা ও সঠিক মানসিকতার বিবেচনায় আইনি পেশা বাংলাদেশের অন্যতম সম্মানজনক একটি পেশা।

 

Leave a Comment

error: Content is protected !!